সরকারি বাসে হামলা বনধ সমর্থকদের

46

দিনদর্পণ: বনধ সমর্থকদের ছোঁড়া ঢিলে ভাঙল সরকারি বাসের জানালা। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জের চন্ডীতলায় ১০ নম্বর রাজ্য সড়কে। ঘটনাস্থলে রায়গঞ্জ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে৷

আজ ট্রেড ইউনিয়নের ডাকা ৪৮ ঘন্টা বনধের দিন সকালে ইসলামপুর থেকে বালুরঘাটগামী উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন নিগমের একটি বাস রায়গঞ্জ শিলিগুড়ি মোড় পার হবার পর ১০ নম্বর রাজ্য সড়ক ধরে বালুরঘাটের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। পথে চন্ডীতলা এলাকায় আচমকা বাসের জানালায় ঢিল মারে বনধ সমর্থনকারীরা। ভেঙে যায় বাসের জানালা। তবে এই ঘটনায় কেউ আহত হয়নি৷

উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সরকারের জনবিরোধী, শ্রমিক বিরোধী ও দেশের স্বার্থ বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে বামেদের কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়ন ডাকা ৪৮ ঘন্টা ধর্মঘট দেখা যায় উত্তর দিনাজপুর জেলাতেও। সারা দেশের পাশাপাশি এদিন ধর্মঘট শুরু হয় রায়গঞ্জেও। মঙ্গলবার সকালে পরপর দূরপাল্লার একাধিক সরকারি বাস ডিপো থেকে ছেড়ে বেরোতে দেখা গিয়েছে। তবে অধিকাংশ বাসেই যাত্রী সংখ্যা ছিল কম। যে কোনও রকম অপ্রতিকার পরিস্থিতি সামলাতে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ বাহিনী মজুত রাখা হয় উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার ডিপোর সামনে। সকালের দিকে এদিন বেশ কিছু টোটোকে পথে নামতেও দেখা গিয়েছে। যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতে শিলিগুড়ি মোড় সংলগ্ন ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কেও এদিন পুলিশকে বাড়তি নজরদারি চালাতে দেখা গিয়েছে।

ধর্মঘটের অন্যান্য দাবী গুলির পাশাপাশি রাধিকাপুর- কলকাতা সকালের ট্রেন, ইসলামপুর ডালখোলা একাধিক দূরপাল্লার ট্রেনের স্টপেজ,ডালখোলা ইসলামপুর বাইপাসের কাজ দ্রুত শেষ ও রূপাহার ডালখোলা ফোর লেনের কাজ দ্রুত শেষ করার দাবী রাখা হয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলা সিপিআইএমের পক্ষ থেকে।